Wn/bn/বেলজিয়ামে ইরানি কূটনীতিকের ২০ বছরের কারাদণ্ড

< Wn‎ | bnWn > bn > বেলজিয়ামে ইরানি কূটনীতিকের ২০ বছরের কারাদণ্ড

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১

ফ্রান্সে একটি সমাবেশে বোমা হামলা চালানোর পরিকল্পনার অভিযোগে ইরানি কূটনীতিক আসাদোল্লাহ আসাদিকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে বেলজিয়ামের আন্টওয়ার্প শহরের একটি আদালত। ২০১৮ সালে নির্বাসিত ইরানিদের দ্বারা ফ্রান্সের প্যারিসের কাছে আয়োজিত সরকার বিরোধী এক র‍্যালীতে ব্যর্থ বোমা হামলার পরিকল্পনার দায়ে তাকে এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

৪৯ বছর বয়সী ওই কূটনীতিকের নাম আসাদুল্লাহ আসাদি। তিন বছর আগে ওই হামলা পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বিস্ফোরক সরবরাহের সময় তিনি ভিয়েনায় ইরান দূতাবাসে যুক্ত ছিলেন। পরে তাকে জার্মানি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। আদালতে আরো তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। জার্মান, ফরাসি ও বেলজিয়ান পুলিশের যৌথ অপারেশনে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ঘোষিত রায়ে আসাদুল্লাহ আসাদি-র তিন সহযোগীকে ১৫ থেকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে যারা ইরান ও বেলজিয়ামের দ্বৈত নাগরিক। তাদের বেলজিয়ামের নাগরিকত্বও বাতিল করা হয়েছে।

ইউরোপে নির্বাসিত ইরান সরকারের বিরোধী পক্ষ ন্যাশনাল কাউন্সিল রেসিসট্যান্স অব ইরান (এনসিআরআই) ২০১৮ এর জুনে এই র‍্যালির আয়োজন করে। এতে গুরুতপূর্ণ আন্তর্জাতিক ব্যক্তিরা ছাড়াও ইউরোপে বসবাসরত হাজার হাজার ইরানি অংশগ্রহণ করেছিল। এই র‍্যালিতে হামলাই ছিল পরিকল্পনার প্রধান উদ্দেশ্য। এনসিআরইকে মুজাহিদিন-ই-খালক এর রাজনৈতিক অঙ্গসংগঠন হিসেবে ধরা হয়। মুজাহিদিন-ই-খালক ইরানের ইসলামিক রিপাবলিককে উৎখাতে সমর্থন দেয়।

আদালত বলেছেন, আসাদুল্লাহ আসাদি ও তার তিন সহযোগী ফ্রান্সে ন্যাশনাল কাউন্সিল অব রেসিট্যান্স অব ইরান (এনসিআরআই)-এর সমাবেশকালে দলটির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের হত্যা করতে চেয়েছিল। তবে জার্মানি, ফ্রান্স ও বেলজিয়ামের পুলিশ আগেভাগেই তাদের এ ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে জেনে যায়। এনসিআরআই-এর আইনজীবীরা বলছেন, পুলিশ এ হামলা ঠেকাতে ব্যর্থ হলে সেদিন রক্তের স্রোত বয়ে যেতো।


উৎসEdit