Wn/bn/সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সামরিক সাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য

< Wn‎ | bn
Wn > bn > সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সামরিক সাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য
নিরীক্ষণের জন্য অপেক্ষমান!  এই নিবন্ধটি ২ জুন, ২০২৪ অনুযায়ী নিরীক্ষণ বা পর্যালোচনা করা হয়নি। এখানে প্রদর্শিত তথ্যগুলোর পুনঃমূল্যায়ন করুন। (আরও জানুনশোধন)

বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৩

আঙ্কারা দূতাবাসের এক কর্মকর্তা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলের বিদ্রোহীদের দেয়া দীর্ঘদিনের সামরিক ও চিকিৎসা সহযোগিতা বন্ধ করে দিয়েছে। এ ঘোষণা এমন এক সময় করা হয়েছে যখন সিরিয়ার বিদ্রোহীদের নতুন জোট ফ্রি সিরিয়ান আর্মির কয়েকটি ঘাঁটি দখল করে নিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মাসে সিরিয়ায় সাতটি নেতৃস্থানীয় বিদ্রোহী দল আহরার আল-শাম, জয়েশ আল-শাম, শুকুর আল-শাম, লিওয়া আল-তাওহীদ, লিওয়া আল হাক, আনসার আল-শাম এবং ‘দ্য কুর্দিশ ইসলামিক ফ্রন্ট’ ৩৩ মাসের গৃহযুদ্ধে সবচেয়ে বড় জোট গড়ার ঘোষণা দেয়। এ জোটের যোদ্ধা সংখ্যা প্রায় ৪৫ হাজার। ‘স্বাধীন রাজনৈতিক, সামরিক এবং সামাজিক গোষ্ঠী’ মতধারার এ জোটের লক্ষ্য হলো বাশার সরকারকে অপসারণ করে নতুন ইসলামী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা।


উৎস

edit
  • "US and UK suspend non-lethal aid for Syria rebels" — বিবিসি, ডিসেম্বর ১১, ২০১৩
  • Richard Spencer, Middle East Correspondent। "Britain and US suspend non-lethal aid to Syrian rebels" — টেলিগ্রাফ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৩


  শেয়ার করুন!
  শেয়ার করুন!