Wn/bn/বাংলাদেশের মাওয়ায় শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবি

< Wn‎ | bn
Wn > bn > বাংলাদেশের মাওয়ায় শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবি
নিরীক্ষণের জন্য অপেক্ষমান!  এই নিবন্ধটি ১ জুন, ২০২৪ অনুযায়ী নিরীক্ষণ বা পর্যালোচনা করা হয়নি। এখানে প্রদর্শিত তথ্যগুলোর পুনঃমূল্যায়ন করুন। (আরও জানুনশোধন)

শুক্রবার, ৮ আগস্ট ২০১৪

বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জের মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌপথে মাওয়া ঘাটে ৪ই আগস্ট, ২০১৪ তারিখে শতাধিক যাত্রী নিয়ে এমএল পিনাক-৬ নামে একটি লঞ্চ পদ্মা নদীতে ডুবে গেছে। বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১১টায় লঞ্চটি শরীয়তপুরের কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রা করে মাওয়া লঞ্চঘাটের অনুমানিক ২২ কিলোমিটার দূরে ডুবে যায়।

বিভিন্ন সূত্রের তথ্যানুসারে লঞ্চটিতে ৪০০ থেকে ৫০০ যাত্রী ছিল বলে ধারণা করা হয়। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি) জানায়, ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী থাকায় প্রচণ্ড স্রোতের কবলে পড়ে লঞ্চটি ডুবে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। উদ্ধার তৎপরতায় অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড, বাংলাদেশ দমকল বাহিনী, বাংলাদেশ পুলিশ, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান ও স্থানীয় জনগণ। বাংলাদেশের কয়েকটি উদ্ধারকারী জাহাজ উদ্ধার তৎপরতায় অংশ নিলেও এই প্রতিবেদন প্রকাশের পূর্ব পর্যন্ত জাহাজটির সন্ধান মেলেনি। এখন পর্যন্ত ১০০ এর কিছু বেশি জীবিত উদ্ধার, ৩৬ জনের লাশ উদ্ধার করা গেলেও বাকীরা নিখোঁজ রয়েছেন।


উৎস

edit
  • দৈনিক প্রথম আলো। "মাওয়ায় শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবি" — প্রথম আলো, আগস্ট ০৪, ২০১৪
  • বিডিনিউজ২৪.কম। "খোঁজ মেলেনি পিনাকের, ৩৬ লাশ উদ্ধার" — বিডিনিউজ২৪.কম, আগস্ট ৮, ২০১৪


  শেয়ার করুন!
  শেয়ার করুন!